1. publisher@banglasomoy24.com : bangla somoy : bangla somoy
  2. admin@banglasomoy24.com : sp-admin :
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
আইআরআইবি ফ্যান ক্লাব বাংলাদেশ-এর উদ্যোগে টাঙ্গাইলে ঈদসামগ্রী বিতরণ সখীপুরে রংধনু ক্লাবের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত ক্যান্সার আক্রান্ত রবিনের সহায়তায় টাঙ্গাইল মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ সখীপুরের গজারিয়ায় ভিজিএফ’র চাল বিতরণ সখীপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতিকে অবাঞ্চিত ঘোষণা সখীপুরে অতিরিক্ত টাকা আদায় ও অনিয়মের অভিযোগে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন সখীপুরে অবৈধ মাটি কাটা ও বিক্রির অপরাধে ভেকু মালিককে কারাদণ্ড সখীপুরে অবৈধ বালু উত্তোলনের অপরাধে ড্রেজার অপসারণ সখীপুরে সৎ ভাইয়ের অত্যাচার ও বাড়িঘর ভাঙচুর, অসহায় নিরীহ পরিবার সখীপুরে নারীকে পেটালেন চেয়ারম্যান, এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সভা, থানায় অভিযোগ

সখীপুরে নারীকে পেটালেন চেয়ারম্যান, এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সভা, থানায় অভিযোগ

সখীপুর (টাঙ্গাইল) সংবাদদাতা: টাঙ্গাইলের সখীপুরে এক নারীকে পেটানোর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ভিডিওতে দেখা যায় খালি গায়ে উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সরকার নুরে আলম মুক্তা ও তাঁর সাথে থাকা এক ব্যক্তি এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে।

গতকাল শনিবার বিকেলে সখীপুর পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এলাকাজুড়ে চলছে নিন্দা ও সমালোচনার ঝড়। এ ঘটনায় মারধরের শিকার জেসমিন আক্তার (৩৫)সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন এবং ইউপি চেয়ারম্যান নূরে আলম মুক্তা (৫৫) ও অপর প্রতিবেশী রুবেলর (৩৫) বিরুদ্ধে সখীপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে মারধরের শিকার ওই নারীর সাথে কথা বলে ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত ওই চেয়ারম্যানের মেয়ে ও মারধরের শিকার ওই নারীর মেয়ে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়াশোনা করেন। এই সুবাদে তারা পরিচিত। তুচ্ছ একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যানের স্ত্রী মারধরের শিকার ওই নারীর মেয়েকে নানা কটু কথা শোনায় ও হুমকি-ধামকি দেয়। ভুক্তভোগী ওই নারী এ বিষয়ে চেয়ারম্যানের কাছে বিচার দিতে গেলে এক পর্যায়ে চেয়ারম্যান ও রুবেল তাকে এলোপাথাড়ি কিল ঘুষি ও লাথি দিয়ে আহত করে। শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলেও জানান ওই নারী।

এদিকে রোববার (০৩ মার্চ) বিকেলে মারধরের ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারধরের শিকার ওই নারীর এলাকায় অভিযুক্ত চেয়ারম্যানের শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত চেয়ারম্যান সরকার নুরে আলম মুক্তা বলেন,ওই মহিলা পরিকল্পিতভাবে আরেক মহিলাকে সঙ্গে করে নিয়ে এসেছিল। সে বাচ্চাদের স্কুলের তুচ্ছ বিষয় নিয়ে আমার বাসার গেটে লাথি মেরে নোংরা ভাষায় গালিগালাজ করেছে। পরে এক প্রতিবেশী প্রতিবাদ করলে ওই মহিলা প্রথমে প্রতিবেশীর গায়ে হাত তুলেছে। আমাকে ফাঁসাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিওটি কেটে আংশিক প্রকাশ করা হয়েছে।

জানতে চাইলে সখীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ শাহিনুর রহমান এ বিষয়ে বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Customized By BreakingNews